• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

‘ভালোবাসো সবাইকে, বিশ্বাস করো জনাকতকে’

‘ভালোবাসো সবাইকে, বিশ্বাস করো জনাকতকে’

প্রতিকী ছবি

উক্তি ডেস্ক

বিশ্বাস ও বিশ্বস্ততা প্রায় একই। কিন্তু এর মাঝেও যেন রয়েছে বিস্তর পার্থক্য। আপনি যে কাউকে বিশ্বাস করতেই পারেন। বিরাট সমাজ, সম্প্রদায় কিংবা জনগোষ্ঠীকেও আপনি সামগ্রিকভাবে বিশ্বাস করতে পারেন। তবে আপনি যাদের বিশ্বাস করেন, তাদের সবাই আপনার বিশ্বস্ত হয়ে উঠবে না। আমরা বহুজনকে বিশ্বাস করি, কিন্তু আমাদের বিশ্বস্ত মানুষের সংখ্যা নেহাত কম।

বিখ্যাত ইংরেজ নাট্যকার ও বিশ্ববরেণ্য সাহিত্যিক উইলিয়াম শেকসপিয়ার বলেছেন-‘ভালোবাসো সবাইকে, বিশ্বাস করো জনাকতকে’। কালজয়ী এই ড্রামা-ট্রাজেডির জনক যা বলেছেন, তা নিয়ে বিশ্লেষণ করলে উত্তর খুব সহজেই মিলবে।

শেকসপিয়ার বুঝাতে চেয়েছেন, মানুষ হিসেবে সবাইকে ভালোবাসা উচিত। কিন্তু ভালোবাসলেও সব মানুষকে বিশ্বাস করা ঠিক নয়। মানুষ অন্যজনকে ভালোবাসবে। এই ভালোবাসা মূলত শ্রদ্ধা, সম্মান, স্নেহ ও পরোপকারিতার মাধ্যমে ফুটে উঠবে। মানুষের মানবিকতার যখন জয় হবে, তখনই কেবল সার্বজনীন ভালোবাসা প্রকাশ্যে আসবে।

‘অ্যাভনের হিরো’ খ্যাত শেকসপিয়ারের এই কালজয়ী উক্তির সঙ্গে অন্যান্য অসংখ্য মনীষীর উক্তিও মিলে যায়। যেমন বিশ্বকবি বরীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন-‘কাউকে বিশ্বাস করা যায় ঠিক, কিন্তু অনেকেই বিশ্বস্ত হয় না’।

জীবনতরীর বহমান গতিতে আমরা নানা রকম মানুষের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করি। বহু রকম মানুষের সঙ্গে আমাদের জানা শোনা হয়। আমাদের উচিত, সকল মানুষের প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শন করা। মানুষকে, সকল সৃষ্টিজীব ও সকলের মর্যাদাকে আমাদের ভালোবাসা উচিত। তবে কাউকে ভালোবাসলেই যে তাকে অন্ধভাবে বিশ্বাস করে নিতে হবে এমনটিও করা যাবে না।

বিশ্বস্ত মানুষ পেতে হলে মানুষকে বিশ্বাস করতে হবে। বিশ্বাস করতে হবে অল্প সংখ্যক মানুষকে। আপনি আপনার বিশ্বস্ত মানুষের সংখ্যা যত কম করবেন, আপনার জীবন ততই ঝঁঞ্ঝাটমুক্ত হবে। কারণ এক সঙ্গে বহুমানুষের ওপর আপনি আস্থা ধরে রাখতে পারবেন না।

২০ জুন ২০২২, ০১:৩৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।