• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

পুষ্টিগুণে অনন্য সবজি ‘কাঁচা পেঁপে’

পুষ্টিগুণে অনন্য সবজি ‘কাঁচা পেঁপে’

প্রতিকী ছবি

ফিচার ডেস্ক

পুষ্টিগুণে অনন্য একটি ফল ‘পেঁপে’। এটি সবজি হিসেবেও খাওয়া হয়। কাঁচা পেঁপে সালাদ, ভর্তা ও সবজি হিসেবে খাওয়ার প্রচলন বেশি। তবে পাকা পেঁপে দারুণ একটি ফল। ভেষজগুণে ভরা পেঁপে নানা রোগের উপশমেও ব্যাপক কার্যকরী। সুপ্রাচীন কাল থেকে আবহমান বাংলায় রোগ নিরাময়ে পেঁপে ও পেঁপের রস ব্যবহার হয়ে আসছে।

প্রিয় পাঠক, এই পর্বে কাঁচা পেঁপের পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা নিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়া হয়েছে। চলুন দেখে নেয়া যাক-

পরিচয় : পেঁপের বৈজ্ঞানিক নাম Carica Papaya। এরা Caricaceae পরিবারের সদস্য। এটি একটি ফল, যা কাঁচা তথা সবুজ অবস্থায় সব্জি হিসেবে খাওয়া যায়। পাকা পেঁপে ফল হিসাবে খাওয়া হয়। ভেষজ গুণেও অন্যতম পেঁপে। এটির ইউনানী নাম পাপিতা, আরানড খরবূযা। পেঁপের আয়ুর্বেদিক নাম ‘অমৃততুম্বী।

পুষ্টিগুণ : আরএমপি ডটগভ ডটবিডি, উইকিপিডিয়া ও জি নিউজে প্রকাশিত নিবন্ধে বলা হয়েছে, পেঁপে একটি বারোমাসি ফল। এতে রয়েছে কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন সি, সোডিয়াম, পটাশিয়ামসহ নানা ধরণের ভিটামিন ও খনিজ উপাদান।

প্রতি ১০০ গ্রাম কাঁচা পেঁপেতে রয়েছে

কার্বোহাইড্রেট ৭.২ গ্রাম
ক্যালোরি ৩২ কিলোগ্রাম
ভিটামিন সি ৫৭ মিলিগ্রাম
সোডিয়াম ৬.০ মিলিগ্রাম
পটাশিয়াম ৬৯ মিলিগ্রাম
খনিজ উপাদান ০.৫ মিলিগ্রাম এবং
ফ্যাট বা চর্বি- ০.১ মিলিগ্রাম।

উপকারিতা : উইকিপিডিয়া ও জি নিউজে প্রকাশিত নিবন্ধে বলা হয়েছে, কাঁচা পেঁপে-

ওজন কমায় : অন্যান্য ফলের তুলনায় পেঁপেতে ক্যারোটিন অনেক বেশি থাকে। কিন্তু ক্যালরির পরিমাণ অনেক কম থাকায় মেদ ঝরাতে সহায়তা করে। ফলে দ্রুত ওজন কমে।

অন্ত্রের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করে : পেঁপের বীজে রয়েছে এন্টি-অ্যামোবিক ও এন্টি-প্যারাসিটিক, যা অন্ত্রের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করে। এমনকি এটি বদহজম, কোষ্ঠকাঠিন্য, এসিড রিফ্লাক্স, হৃদযন্ত্রের সমস্যা, অন্ত্রের সমস্যা, পেটের আলসার ও গ্যাস্ট্রিক সমস্যা থেকেও রক্ষা করে।

ত্বকের সমস্যা দূর করে : পেঁপেতে বিদ্যমান পুষ্টিগুণ ব্রণ ও ত্বকের যে কোনো ধরনের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে : পেঁপেতে থাক এন্টি-অ্যামোবিক ও এন্টি-প্যারাসিটিক উপাদান বদহজম এবং কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা দূর করে।

ত্বকের ক্ষত দূর করে : পেঁপেতে থাকা উপাদানগুলো ত্বকের ছিদ্র মুখগুলো খুলে দেয়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি ফেসপ্যাক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কাঁচা পেঁপে ত্বকের মরা কোষগুলোকে পুনজ্জ্বীবিত করে তুলতে সহায়তা করে।

ব্যথা নিরাময় করে : পেঁপের পুষ্টিগুণ মেয়েদের জন্য সবচেয়ে বেশি দরকারী। কারণ এটি নারীদের যে কোনো ধরনের ব্যথা কমাতে কার্যকারী ভূমিকা রাখে। পেঁপের পাতা, তেঁতুল ও লবণ একসাথে মিশিয়ে পানি দিয়ে খেলে ব্যথা ভালো হয়ে যায়।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায় : রক্তচাপ ঠিক রাখার পাশাপাশি রক্তের প্রবাহকে নিয়ন্ত্রণ করে কাঁচা পেঁপে। এমনকি শরীরের ভেতরের ক্ষতিকর সোডিয়ামের পরিমাণকেও কমিয়ে দেয়। ফলে হৃদরোগের সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়।

দেহের চর্বি কমায় : পেঁপেতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি, ই এবং ভিটামিন এ। এসব উপাদান এবং পেঁপেতে থাকা এন্টি-অক্সিডেন্ট দেহের অতিরিক্ত ক্যালরি ও চর্বির পরিমাণ কমিয়ে দেয়।

তথ্যসূত্র : আরএমপি ডট গভ ডট বিডি, উইকিপিডিয়া ও জি নিউজ

 

এবি/এসএন/আরএ

২৩ নভেম্বর ২০২১, ০৫:১৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।