• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯

হজম শক্তি বৃদ্ধির ১০ উপায়

হজম শক্তি বৃদ্ধির ১০ উপায়

প্রতিকী ছবি

ফিচার ডেস্ক

হজমশক্তি মানুষের সুস্থ্যতার মূল। যার হজমশক্তি যত উন্নত, তার শরীর তত বেশি ভালো। তাই, সুস্বাস্থ্যের জন্য হজমশক্তি বৃদ্ধির বিকল্প নেই। সব মানুষের হজমশক্তি একরম নয়। একই খাবার খেয়ে কোনো মানুষ সহজেই তা হজম করতে পারেন, আবার কেউ কেউ অ্যাসিডিটি বা বদহজমে ভুগেন। হজমক্ষমতা বৃদ্ধি করতে চাইলে আমাদের কিছু নিয়ম মানতেই হবে।

নিয়মতান্ত্রিক জীবনধারা গঠন ও স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণের মাধ্যমে হজমশক্তি বৃদ্ধি করা যায়। এক্ষেত্রে হজমশক্তি বৃদ্ধির উপায়, হজমশক্তি কেন কমে যায়, কোন কোন খাবারে হজমশক্তি বৃদ্ধি পায়, এরকম নানা বিষয়ে আমরা এর আগের পর্বে আলোচনা করেছি।

প্রিয় পাঠক, এই পর্বে আমরা এমন কয়েকটি উপায় আপনাদের সামনে তুলে ধরব, যে উপায় অবলম্বন করলে আপনার হজমশক্তি আপনি নিজেই বাড়িয়ে নিতে পারবেন। চলুন দেখে নেয়া যাক।

হজম শক্তি কমে যাওয়ার লক্ষণ

⇒ পেটে ব্যথা হওয়া।
⇒ অ্যাসিডিটি ও ঢেঁকুর ওঠা।
⇒ পেটে অথবা তলপেটের ওপরে জ্বালা করা।
⇒ উদর ফেঁপে ওঠা।
⇒ বমিবমি ভাব হওয়া এবং গা গোলানো।
⇒ পেটে গজরানি এবং অস্বস্তি হওয়া।
⇒ কোষ্ঠকাঠিন্য বা ডায়রিয়া হওয়া।
⇒ খাওয়ার ইচ্ছা কমে যাওয়া।

হজমশক্তি বাড়ানোর প্রাকৃতিক উপায়

খাবার চিবিয়ে খান: অনেকেই খাবার খাওয়ার সময় তাড়াহুড়া করেন। ভালো মতো খাবার চিবিয়ে না খেয়ে কেউ কেউ দ্রুত গিলে গিলে খাবার খান। যারা এমনটি করেন, তাদের হজমশক্তি কমে যায়। ধীরে ধীরে পেটে অ্যাসিডিটির সমস্যা ও ইউরিক অ্যাসিড বৃদ্ধির মতো সমস্যা তৈরি হয়। তাই, খাবার খাওয়ার সময় খাবার মুখে দিয়ে প্রতিবার অন্তত ৩০/৩৫ বার চিবিয়ে নিন। এতে খাবার দ্রুত হজম হয়।

ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার খান: নিত্যদিনের খাদ্যতালিকায় ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার রাখুন। ক্যালসিয়াম আমাদের দেহের হজমশক্তি বাড়িয়ে দিতে সহায়তা করে।

পর্যাপ্ত পানি করুন: হজমশক্তি বাড়াতে নিরাপদ পানি পানের বিকল্প নেই। প্রাপ্ত বয়স্কদের প্রতিদিন অন্তত ১০ থেকে ১২ গ্লাস পানি করতে হবে। তবে খাবার খাওয়াকালীন পানি পান করবেন না। এতে হজমে সমস্যা দেখা দেয়। খাবার খাওয়ার আধা ঘণ্টা আগে ও আধা ঘণ্টা পরে পানি করুন।

আঁশযুক্ত খাবার খান: আপনার খাদ্যতালিকায় রাখুন আঁশযুক্ত খাবার। আঁশযুক্ত খাবার সহজে পানি শোষণ করে। এই শোষণক্রিয়া আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

গ্রিন টি ও পুদিনা পাতার চা: প্রাকৃতিক ভাবে হজমশক্তি বৃদ্ধি করতে চাইলে নিয়মিত গ্রিন টি অথবা পুদিনা পাতার চা পান করতে পারেন। তবে চেষ্টা করবেন চিনি ছাড়া চা পান করতে। গ্রিন টি ও পুদিনা পাতায় রয়েছে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা হজমক্রিয়া উন্নত করে।

পর্যাপ্ত ঘুমান: বেশি রাত জাগবেন না। দ্রুত ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস করুন। যারা বেশি বেশি রাত জাগেন, তাদের হজমশক্তি কমতে শুরু করে। তাই, রাত জাগবেন না। দিন অন্তত ৭ /৮ ঘণ্টা ঘুমান। হজমশক্তি এমনিতেই ভালো হবে।

প্রফুল্ল থাকুন: যারা মানসিক চাপ বা বিষন্নতায় ভুগে থাকেন, তাদের হজমশক্তি দিন দিন কমতে থাকে। তাই, শত প্রতিকূলতার মাঝেও নিজেকে প্রফুল্ল রাখুন। মানসিক চাপ দূরে রাখুন।

বাইরের খাবার পরিহার করুন: হজমশক্তি কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ অতিরিক্ত তেল জাতীয় খাবার, ঝাল ও মসলাযুক্ত খাবার। মুখরোচক হলেও এসব খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

ধূমপান ছাড়ুন: আপনি যদি ধুমপান করে থাকেন, তাহলে তা আজই ছাড়ুন। গবেষকরা বলছেন, ধুমপানের কারণে মানবদেহের পাকস্থলীতে জীবাণুধ্বংসকারী অ্যাসিডের উৎপাদন ব্যাহত হয়। ফলে হজমশক্তি কমে গিয়ে অ্যাসিডিটি ও আলসারের মতো সমস্যা সৃষ্টি হয়।

 

তথ্যসূত্র: হেলথ লাইন ও হেলথ নিউজ টুডে।

০৩ আগস্ট ২০২২, ০৮:৩৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।