• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯

শ্বাসরুদ্ধ ম্যাচে প্রতিশোধ পাকিস্তানের

শ্বাসরুদ্ধ ম্যাচে প্রতিশোধ পাকিস্তানের

স্পোর্টস প্রতিবেদক

পাকিস্তান-ভারত খেলা মানে উন্মাদনা। মাঠে ব্যাট-বলের লড়াই, গ্যালারিতে উত্তেজনা আর ভার্চুয়াল জগতে কথার লড়াই। দশ মাস পর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রতিদেশের মুখোমুখি হল এশিয়া কাপে। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় ম্যাচে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল ভারত। সুপার টুয়েলভের ম্যাচে ঠিক ৫ উইকেটে হারিয়ে সেই প্রতিশোধ নিয়েছে পাকিস্তান।

রোববার সন্ধ্যায় দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সুপার টুয়েলভের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হয়। ম্যাচে টস জিতে ভারতকে ফিল্ডিংয়ে পাঠায় বাবর আজমের দল। ওপেনার রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের ঝড়ো শুরুতে ওপেনিং পার্টনারশিপেই ৩১ বলে ৫৪ রান তোলে ভারত।

সূর্যকুমার যাদব ১৩ রানে ফিরলেও তিনে নামা বিরাট কোহলি এক প্রান্ত আগলে রাখেন। ৪৪ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলেন কোহলি। তার ব্যাটে ভর করেই ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮১ রান তোলে ভারত। পাকিস্তানের সামনে দাঁড়ায় ১৮২ রানে বড় লক্ষ্য।

বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বাবর আজমকে হারায় পাকিস্তান। তবে শক্ত হাতে বরাবরের মতো হাল ধরেন আরেক ওপেনার রিজওয়ান। তিনে নামা ফাখর জামান ১৮ বলে ১৫ করে ফিরলেও মোহাম্মদ নেওয়াজকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যান রিজওয়ান। তার সাথে গড়েন ৪১ বলে ৭৩ রানে ঝড়ো জুটি। মাত্র ২০ বলে ২১০ স্ট্রাইকরেটে ৪২ রান তুলে সাজঘরে ফেরেন নওয়াজ।

কিছুক্ষণ পরই দলকে চাপে ফেলে হার্দিক পান্ডিয়ার বলে সূর্যকুমার যাদবের কাছে ক্যাচ দিয়ে ৫১ বলে ৭১ রানের ইনিংস খেলে ফেরেন রিজওয়ান। এরপর খুশদিল আর আসিফ আলি পাকিস্তানকে খেলায় ফেরায়। আসিফ ৮ বলে ১৬ রানে ঝড়ো ইনিংস খেলেন। তবে নাটকীয়তার সেখানেই শেষ নয় আসিফ ফিরলে আবারও খেলায় ফেরে ভারত। শেষ ২ বলে প্রয়োজন ছিল ২ রান। ইফতেখার ব্যাট হাতে ক্রিজে প্রবে করলেও অনিশ্চিয়তা আর নাটকীয়তার অপেক্ষা কাটছিল না। কিন্তু ১ বল হাতে রেখেই বাবররা কাঙ্ক্ষিত জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়।

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:০৯এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।