• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

ইমরান খানের যে বক্তব্যে নতুন আলোড়ন পাকিস্তানে!

ইমরান খানের যে বক্তব্যে নতুন আলোড়ন পাকিস্তানে!

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তানের রাজনীতিতে নতুন এক আলোড়নের নাম ইমরান খান। বিশ্ব ক্রিকেট শাসন করা সাবেক এই অলরাউন্ডার এবার পাকিস্তানের রাজনীতির অলরাউন্ডার। অনাস্থা ভোটে প্রধানমন্ত্রীত্ব হারিয়েও তিনি নতুন এক জাগরণ সৃষ্টি করেছেন। বিশ্লেষকরা বলছেন, ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে বরং পাকিস্তানের সাধারণ জনগণের কাছে নিজের বার্তা বেশি করে পৌছে দিতে পেরেছেন ইমরান।

এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের খবরে বলা হয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে সমাবেশ করেছেন ইমরান খান। বক্তব্য দিয়েছেন। তবে গতকাল রাতে ইমরানের এক বক্তব্য নতুন করে আলোড়ন ফেলেছে।

ইমরান খান বলেছেন, “পাকিস্তানের সেনাবাহিনী নিয়ে নেতিবাচক কিছু কেউ বলবেন না। সেনাবাহিনী না থাকলে পাকিস্তানই থাকবে না। ইমরান খানের চেয়েও দেশে সেনাবাহিনীর প্রয়োজনীয়তা বেশি।”

নিজ দলের কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া বক্তবে ইমরান বলেন, “আপনারা কেউ সেনাবাহিনীর প্রতি বিষোদগার করবেন না। তারা পাকিস্তানের অখন্ডতার অতন্দ্র প্রহরী। আমি ইমরান খান যতটা প্রয়োজনীয়, সেনাবাহিনীর তার চেয়ে হাজারগুণ বেশি প্রয়োজন পাকিস্তানের জন্য।”

এ সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাকিস্তান সেনাবাহিনী সম্পর্কে ছড়ানো কয়েকটি মিম সম্পর্কে ইমরান খান জানান, তিনি এখন টেলিভিশন দেখেন না এবং পত্রিকা পড়ার সময় পান না। তবে তিনি সামাজিকমাধ্যমে ওই বিষয়গুলো দেখেছেন।

ইমরান খান বলেন, পাকিস্তানের শত্রুরা সেনাবাহিনীকে আক্রমণ করছে এবং নওয়াজ শরিফ এবং আসিফ আলি জারদারির শাসনের সময় সেনাবাহিনীকে অবমূল্যায়নের চেষ্টা করা হয়েছে। নওয়াজ যখন বিদেশ ছিলেন তখন তিনি সেনাপ্রধানকে আক্রমণ করেছেন। বিষয়টি সেনাবাহিনী এবং প্রত্যেকেই জানে।

ইমরান খান বলেছেন, দেশের যুবকরা যদি ‘বিদেশি ষড়যন্ত্র’ মেনে নেয়, তবে ভবিষ্যতে পুরো প্রজন্ম ধনী দেশের ভিসা পেতে চাইবে। যদি এ সরকারের মতো দুর্নীতিবাজরা ক্ষমতায় আসে, তা হলে কোনো ভবিষ্যৎ নাই।

২১ এপ্রিল ২০২২, ০১:৩৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।