• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
সোলার হোম সিস্টেম বিতরণ করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং

দুর্গম পাহাড়ে ১৩শ’ পরিবার পেল বিদ্যুতের আলো

দুর্গম পাহাড়ে ১৩শ’ পরিবার পেল বিদ্যুতের আলো

নিজস্ব প্রতিবেদক

বান্দরবানের থানচি উপজেলার দুর্গম রেমাক্রী এলাকায় এক হাজার ৩শ’ টি সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এ সোলার প্যানেল বিতরণ করেন।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রেমাক্রী অঞ্চলের দুর্গম জনপদে বসবাসরত ১৩২৭টি পরিবারের মাঝে এই সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়। রেমাক্রী বাজারে ‘পার্বত্য চট্টগামের প্রত্যন্ত এলাকায় সোলার প্যানেল স্থাপনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ-২য় পর্যায়’ প্রকল্পের সহায়তায় সরবরাহকৃত ১ হাজার ৩২৭টি পরিবারের মাঝে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ‘পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার বিদ্যুৎ সেবা থেকে বঞ্চিত মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার এই সোলার প্যানেল। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সোলার প্যানেল সিস্টেমের সঙ্গে আমরা বিনামূল্যে বিদ্যুৎ সরঞ্জামও দিয়েছি। এ ছাড়া সরঞ্জামগুলো স্থাপনের জন্য প্রত্যেক পরিবারকে নগদ টাকাও দেয়া হয়েছে।’

মন্ত্রী বীর বাহাদুর আরও বলেন, ‘দুর্গম ও প্রত্যন্ত পাহাড়ী অঞ্চলে গ্রীড লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌছানো অত্যন্ত দুস্কর ও ব্যয়বহুল। এসব এলাকায় আলো ও অন্যান্য বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা প্রক্রিয়ার একমাত্র মাধ্যম ছিলো কেরোসিন বাতি বা ডিজেল জেনারেটর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সরকার রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলায় প্রত্যন্ত দুর্গম এলাকার সুবিধাবঞ্চিত পরিবারকে বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণ ও স্থাপন করে দেয়া হচ্ছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘১০ হাজার ৮৯০ টি পরিবারকে সোলার হোম সিস্টেম এবং ২ হাজার ৮১৪টি সোলার কমিউনিটি সিস্টেমের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বঞ্চিত পাড়া কেন্দ্র, দুর্গম এলাকার স্টুডেন্ট হোস্টেল, অনাথ আশ্রম কেন্দ্র, এতিমখানাগুলোতে বিতরণ ও স্থাপন করা হয়েছে। বান্দরবান জেলার ৭ উপজেলার প্রত্যেক উপজেলা ও ইউনিয়নে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান নিশ্চিত করা হয়েছে।’

অনুষ্ঠানে পার্বত্য উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য (বাস্তবায়ন) মো. হারুন-অর-রশিদ, বান্দরবান পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলাম, থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহা. আবুল মনসুর, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বান্দরবান ইউনিট অফিসের নির্বাহী প্রেেকৗশলী আবু বিন মো. ইয়াসির আরাফাত, থানচি উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লা মং উপস্থিত ছিলেন।

২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৫২এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।