• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০

যেভাবে এলো মোটরসাইকেল

যেভাবে এলো মোটরসাইকেল

ছবি- সংগৃহিত

ফিচার ডেস্ক

যন্ত্র ও প্রযুক্তি নির্ভর এই অত্যাধুনিক যুগে মানুষ পৃথিবী জয় করেছে। পৃথিবীর বাইরে থাকা অচিন গ্রহ নক্ষত্রের সন্ধানে মানুষ বিভিন্ন যান নিয়ে ছুটে চলছে। স্বয়ংক্রিয় যানবাহনের উদ্ভাবন এখন নতুন মাত্রা বিশ্বজুড়ে। আবার প্রযুক্তি উভচর যানবাহনও তৈরির নতুন মাইলফলক স্পর্শ করে ফেলেছে। এমন হাজারো মাইলফলকের মাঝে যেন সবচেয়ে জনপ্রিয় বাহন মোটরসাইকেল। বিশ্বজুড়ে এই একটি মাত্র বাহন সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয়।

মোটরসাইকেলের বর্তমান আধুনিক রুপ মুগ্ধ করে। কিন্তু কেমন ছিল বিশ্বের প্রথম মোটরসাইকেলের চেহারা। সেই আদি মোটরসাইকেলে কি কি ছিল, কেমন ছিল সুবিধা, সেসব নিয়েই আমাদের এই আয়োজন।

উদ্ভাবন
ইনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা’র তথ্য বলছে, ১৮৯৪ সালে ‘হাইডের্ব্যান্ড এন্ড উলফমুলার’ নামের প্রথম পেট্রোল চালিত বাণিজ্যিক মোটরসাইকেল বাজারে আসে। প্রকৌশলী উলফমুলারে নেতৃত্বে বাষ্প ইঞ্জিনের অন্যতম গবেষক হেনরিক আর হাইডের্ব্যান্ড এই মোটরসাইকেল উদ্ভাবন করেন। এর মধ্যদিয়েই জার্মানির মিউনিখে উদ্ভাবিত হয় পেট্রোল চালিত বিশ্বের প্রথম মোটরসাইকেল।

১৮৮৫ সালে প্রথম বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেলের উৎপাদন শুরু হয়।

১৮৮৫ সালে জার্মান বিজ্ঞানী গোতেলেব ডাইমলের ও উইলহেম মেব্যাক তাপীয় ইঞ্জিনের মোটরসাইকেল তৈরি করে।

১৯১৯ সালে হাইডের্ব্যান্ড এন্ড উলফমুলারের আবিষ্কৃত মোটরসাইকেল তৈরি বন্ধ হয়ে যায়।

মোটরসাইকেলের প্রথম ব্র্যান্ড

মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে তুরিম্প, রয়্যাল এনফিল্ড, নর্টন, বার্মিংহাম স্মল আর্মস, হার্লেডেভিডসন ছিল বৈশ্বিক ব্র্যান্ড।

এছাড়া এশিয়া মহাদেশের হোন্ডা, কাওয়াসাকি, সুজুকি মোটর কর্পোরেশন ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

 

তথ্যসূত্র: ব্রিটানিকা।

০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৭:২৮পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।