• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ডায়াপার ফুসকুড়ি থেকে শিশুর সুরক্ষার টুকিটাকি

ডায়াপার ফুসকুড়ি থেকে শিশুর সুরক্ষার টুকিটাকি

প্রতিকী ছবি

ফিচার ডেস্ক

শিশুকে প্রস্রাব-পায়খানার নির্যাস থেকে সুষ্ক রাখতে ডায়াপারের জুড়ি নেই। বর্তমানে শিশুদের ডায়াপার অনেক জনপ্রিয়। কিন্তু এই ডায়াপার শিশুর দেহে কিছু সমস্যাও তৈরি করে। এর মধ্যে অন্যতম ‘ডায়াপার র‌্যাশ’। দীর্ঘক্ষণ ভেজা ডায়াপার পরিয়ে রাখার কারণে শিশুর কোমর, দুই নিতম্ব ও কুচকির ভিতরে র‌্যাশ বা ফুসকুড়ি দেখা দেয়। এই সমস্যায় অধিকাংশ শিশু ভুগে থাকে।

ডায়াপার ফুসকুড়ি বা র‌্যাশের কারণে চুলকানি ও জ্বালাপোড়াও শুরু হয় কারো কারো। শিশুকে ডায়াপার ফুসকুড়ি থেকে সুরক্ষিত রাখার কিছু উপায় নিয়ে এই পর্ব। চলুন দেখে নেয়া যাক।

ডায়াপার ফুসকুড়ির উপসর্গ

∇ প্রস্রাব, মলত্যাগ এবং ঘামের সংস্পর্শে ছোট ছোট ঘামাচির মতো দানা দেখা দিতে পারে।
∇ ডায়াপার ফুসকুড়ি ত্বকে জ্বালা-পোড়া ভাব সৃষ্টি করে।
∇ যে বাচ্চাদের এ্যালার্জিজনিত সমস্যা আছে, ডায়াপারের কারণে তাদের এ্যালার্জি বেড়ে যেতে পারে।
∇ এ ছাড়া মৃদু ব্যথা, ডায়াপার পরানোর জায়গা টুকু লালচে ভাব, খসখসে ত্বক, অমসৃণ ত্বক ডায়াপার ফুসকুড়ির লক্ষণ।
∇ এটি ত্বকে ছত্রাকের সংক্রমণ বাড়িয়ে দেয়।

ডায়াপার ফুসকুড়ি থেকে যা হতে পারে

গবেষকরা বলছেন, ডায়াপার ফুসকুড়ি থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে লাল গোটা গোটা দাগ বা গোটা দেখা দিতে পারে। কিন্তু এটি ক্রমেই বড় লাল বৃত্তাকার ত্বক তৈরি করে। খোলা ঘা, পুঁজ ভরা ঘা এমনকি রুক্ষè ত্বকও তৈরি করতে পারে।

সুরক্ষার উপায়

— একান্ত প্রয়োজন ছাড়া শিশুকে ডায়াপার পরাবেন না।
— শিশুকে ডায়াপার ছাড়া হাটা চলা ও খেলার পর্যাপ্ত সময় দিন।
— প্রয়োজনে শিশু যেসব জায়গা নোংরা করতে পারে সে সকল জায়গায় বিকল্প মোটা তোয়ালে বিছিয়ে রাখুন।
— ডায়াপার কোনো ভাবেই শিশুর দেহের সংস্পর্শে দীর্ঘক্ষণ রাখবেন না।
— শিশুর পরনে থাকা ডায়াপার খুলে ফেলার পর শিশুর কোমর থেকে নিচে পর্যন্ত হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে দিন।
— শিশু যদি ডায়াপার ফুসকুড়িতে ভুগে থাকে, তাহলে সাবান এবং বেবি ওয়াইপ এড়িয়ে চলুন।
— চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে দ্রুত আপনার শিশুর চিকিৎসা করান।
— ডায়াপার খোলার পর শিশুর ত্বক পুরোপুরি শুকাতে দিন।
— প্রতিটি ডায়াপার পরিবর্তনের সাথে সাথে ডায়াপার মলম বা পেস্ট ব্যবহার করুন।

 

তথ্যসূত্র: কিডজ হেলথ।

০৪ জুলাই ২০২৩, ১০:১৬এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।