• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০

তরমুজে তরতাজা গুণাগুণ

তরমুজে তরতাজা গুণাগুণ

প্রতিকী ছবি

ফিচার ডেস্ক

বসন্তের বিদায় আসন্ন। আসছে গ্রীষ্ম। হাসফাস করা গরমে প্রশান্তি পেতে লাল টুকটুকে এক ফালি তরমুজের জুড়ি মেলা ভার। গরমে তরমুজের চাহিদা সব থেকে বেশি। তরমুজ কেবল প্রশান্তি দেয় না, বরং এই ফল স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক উপকারী। এতে আছে লাইকোপেন, অ্যামাইনো অ্যাসিড, ভিটামিন, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও পানি। তরমুজ খাওয়া যায়, আবার রূপচর্চায় তরমুজের বহুমুখী ব্যবহার সুপ্রাচীন।

তরমুজে যা আছে

পুষ্টিবিদ ও গবেষকরা বলছেন, ১০০ গ্রাম পাকা তরমুজে আছে ৯২ থেকে ৯৫ গ্রাম পানি, খাদ্যআঁশ ০.২ গ্রাম, আমিষ ০.৫ গ্রাম, চর্বি ০.২ গ্রাম, ক্যালোরি ১৫ থেকে ১৬ মি.গ্রাম। এছাড়াও তরমুজে ক্যালসিয়াম রয়েছে ১০ মি.গ্রাম, আয়রন ৭.৯ মি.গ্রাম, কার্বহাইড্রেট ৩.৫ গ্রাম, খনিজ পদার্থ ০.২ গ্রাম, ফসফরাস ১২ মিলিগ্রাম, নিয়াসিন ০.২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি ও ভিটামিন বি২। এ ছাড়া এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে সিট্রোলিন নামের অ্যামাইনো এসিড। যা যৌনশক্তি বাড়ায়। এছাড়া এটি রক্তও তৈরি করে।

উপকারিতা

ত্বক ও চুল ভালো রাখে

তরমুজের আরেকটি গুণ হলো এটি চুল ও ত্বকের জন্য উপকারী। এতে থাকা লাইকোপেন ও বিটা ক্যারোটিন ত্বককে রোদে পোড়া থাকে রক্ষা করে। খাওয়া ছাড়াও রূপচর্চায় তরমুজ বিশেষ কার্যকরী।

স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়

তরমুজে থাকে প্রচুর পরিমাণে লাইকোপেন। গবেষকরা বলছেন, এই উপাদান হার্টকে সুস্থ রাখে ও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমিয়ে দেয়।

দেহের পানির ঘাটতি কমায়

তরমুজে রয়েছে ৯২ ভাগ পানি, যা দেহের পানির চাহিদা পূরণ করে। এটি শরীরকে ঠান্ডা রাখে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্যাফেইনের তুলনায় তরমুজ অনেক গুণ বেশি উপকারী।

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

যেসব খাবার খেলে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে, তার মধ্যে সহজলভ্য ও রসাল ফল তরমুজ। তরমুজে আছে ভিটামিন সি ও বি৬। এ দুটি উপাদান শরীরকে রোগের বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্য করে।

রোদের তীব্রতার প্রভাব কমায়

গরমের তীব্রতা দিন দিন বাড়ছে। তাই গরমে হঠাৎ করেই হতে পারে হিট স্ট্রোক। তরমুজ মস্তিষ্ক ও শরীরকে রাখে ঠান্ডা রেখে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়।

 

 

আরও কিছু উপকারিতা

মেছতা : ত্বকে মেছতা হলে সেটা থেকে রক্ষা পেতে নিয়মিত তরমুজ খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে ত্বক উজ্জ্বল হবে ও মেছতা দূর হবে।

চোখে ছানি পড়া: তরমুজে থাকা ভিটামিন এ এবং বিটা ক্যারোটিন চোখের ছানি পড়তে বাধা সৃষ্টি করে। তরমুজের ভিটামিন এ আমাদের চোখের জ্যোতি বাড়ায়।

কিডনির যত্নে: তরমুজে আছে অধিক পরিমাণে পানীয় উপাদান যেগুলো কিডনির উপর চাপ কমিয়ে প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া কমায়। তরমুজ কিডনি ও লিভার সুস্থ রাখতে অনেক উপকারী।

রক্তচাপ ঠিক রাখে: তরমুজে থাকা প্রচুর ক্যালসিয়াম ও পটাসিয়াম আমাদের দেহের রক্তচাপ সাভাবিক রাখে।

 

তথ্যসূত্র: হেলথ লাইন ও ওয়েব এমডি।

১৩ মার্চ ২০২৩, ০১:৪৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।