• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

‘যুদ্ধ একটা উপলক্ষ মাত্র, লক্ষ্য হচ্ছে ক্ষমতার পরীক্ষা’

‘যুদ্ধ একটা উপলক্ষ মাত্র, লক্ষ্য হচ্ছে ক্ষমতার পরীক্ষা’

প্রতিকী ছবি

উক্তি ডেস্ক

যুদ্ধ মানেই জীবনের অবসান। যুদ্ধ মানেই সভ্যতার পরাজয়। যুগে যুগে বহু রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের সাক্ষী হয়েছে এই পৃথিবী। যুদ্ধের ডামাডোলে হারিয়ে গেছে বহু সভ্যতা। কেবল সম্পদ দখল, দেশ দখল, মতাদর্শ প্রতিষ্ঠা কিংবা সমৃদ্ধি অর্জনের জন্যই কেবল পরস্পর যুদ্ধ হয় না। সব যুদ্ধের নেপথ্যে রয়েছে ক্ষমতা প্রদর্শনের আকাঙ্খা। দেশে দেশে যুদ্ধের অন্যতম কারণ নিজেদের শক্তিমত্ত্বার জানান দেয়া।

তবে মানুষ চাইলেই যুদ্ধ এড়ানো সম্ভব। খ্যাতিমান বাঙালি লেখক, সাহিত্যিক ও সমাজ সংস্কারক অন্নদাশঙ্কর রায় বলেছেন-‘যুদ্ধ একটা উপলক্ষ মাত্র, লক্ষ্য হচ্ছে ক্ষমতার পরীক্ষা’।

জনপ্রিয় বাঙালি সাহিত্যিক অন্নদাশঙ্করের এই উক্তির সঙ্গে গত কয়েক দশকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে চলা যুদ্ধের উদ্দেশ্য কেমন যেন মিলে যায়। রাশিয়া-আফগান যুদ্ধ, ইরাক-আফগানিস্তানে মার্কিন আগ্রাসন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ কিংবা ১৯৪৫-এর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ, এসব যুদ্ধের অন্যতম কারণ শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোর ক্ষমতা জাহির।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-পশ্চিমা জোট এবং রাশিয়া-চীনের অঘোষিত জোট পৃথিবীতে পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষভাবে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে। এসব যুদ্ধে দেশগুলো সরাসরি অংশ না নিলেও গোলাবারুদ, অর্থ ও সেনা সহায়তা দিয়ে যুদ্ধ টিকিয়ে রাখছে। এতে করে মূলত শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো তাদের শক্তির বহিঃপ্রকাশ ঘটাচ্ছে।

ক্ষমতাধরদের চরিত্রই হয়তো এমন। তারা যুদ্ধ লাগিয়ে দেয় দুপক্ষে। আবার এই মোড়ল রাষ্ট্রগুলোই যুদ্ধ থামাতে আলোচনার টেবিলে বসে। এতে তাদের মোড়লগিরিও প্রতিষ্ঠিত হয়, আবার যুদ্ধ বাধানোর নেপথ্য শক্তি হিসেবে নিজেদের হিম্মতেরও প্রমাণ দেয়।

২০ জুন ২০২২, ১১:৩১এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।